ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ জুন ২০১৭, ১৩ আষাঢ় ১৪২৪

‘জাতীয় দলের হয়ে ১০-১২ বছর খেলার পর এখনও মনে হয় অনেক কিছুই নাই'

ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর থেকেই বদলে যেতে শুরু করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অবস্থান। ওয়ানডে ক্রিকেটে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করেছে বড় দল হিসেবে। জাতীয় দলের সঙ্গে ক্রিকেট বোর্ডও জায়গা করে নিয়েছে ধনী ক্রিকেট বোর্ডের তালিকায়। তবে সেই হিসেবে ভাগ্য খুলেনি ক্রিকেটারদের। অনন্য দেশের তুলনায় খুবই কম পারিশ্রমিক পান মাশরাফি-মুশফিকরা। এবার বোর্ডের কাছে পারিশ্রমিক বাড়ানোর অনুরোধ করলো টাইগারদের টেস্ট অধিনায়ক।

প্রিমিয়ার লিগের দলবদলে মোহামেডান ছেড়ে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জে নাম লেখাতে এসে মুশফিক বলেন, ‘প্রিমিয়ার লিগ ও বিপিএল দিয়ে খেলোয়াড়রা আর্থিকভাবে বেশি লাভবান হয়। জাতীয় দলে আমরা বছরের ৯ থেকে ১০ মাসই ব্যস্ত থাকি। তাই ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের জন্য শুধু জাতীয় দলই নয়, প্রতিটি প্লেয়ারই মুখিয়ে থাকেন। ঘরোয়া লিগের মতো জাতীয় দলেও যদি এমন পেমেন্ট পেতাম তাহলে অবশ্যই ভালো হত।’

একটি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেললে মুশফিকরা পান ৭৫ হাজার টাকা করে। টেস্ট খেললে পান তার দ্বিগুণ। পঞ্চমদিন লাঞ্চ পর্যন্ত টেস্ট খেলতে পারলে দেওয়া হয় দুই লাখ টাকা করে। আর ‘ড্র’ করলে পান আড়াই লাখ। সবচেয়ে কম পারিশ্রমিক টি-টুয়েন্টিতে, ম্যাচফি ৫০ হাজার।

মুশফিক আরও বলেন, ‘জাতীয় দলের হয়ে ১০-১২ বছর খেলার পর এখনও মনে হয় অনেক কিছুই নাই, অনেক কিছুই করার বাকি আছে । আমরা বোর্ডের কাছে অনুরোধ করেছি। আশা করছি কর্তৃপক্ষ কিছু করবে।’

Posted by Newsi24

এ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

খেলা এর সর্বশেষ খবর



রে