ঢাকা, বুধবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৭, ১৩ বৈশাখ ১৪২৪

সিরিয়া হামলায় সারিন গ্যাস ব্যবহারের প্রমাণ মিলেছে

রাসায়নিক অস্ত্র বিস্তার রোধে কাজ করা সংগঠন অর্গানাইজেশন ফর দ্য প্রোহিবিশন অব কেমিক্যাল ওয়েপনস (ওপিসিডব্লিউ) নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর জানিয়েছে সিরিয়া হামলায় সারিন গ্যাসসহ আরো কিছু বিষাক্ত রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়েছে।

ওপিসিডব্লিউ-এর প্রধান আহমেদ উজুমকু জানান, হামলায় আক্রান্ত ১০ জনের শরীরের নমুনা তাদের চারটি ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষা করা হয়েছে।

সিরিয়ায় উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিব শহরে ওই রাসায়নিক গ্যাস হামলায় ২০ শিশুসহ অন্তত ৮৭ জন নিহত হয়।

ওই অঞ্চলের বিদ্রোহীদের উপর হামলার দায় চাপিয়েছিল রাশিয়া। রাশিয়ার পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, হামলার স্থানে রাসায়নিক গ্যাস ছড়িয়ে পড়েছিল বিদ্রোহীদের অস্ত্র থেকে।

তবে বরাবরই দেশটির প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদকে দায়ী করেছে যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু দামেস্কের পক্ষ থেকে তা নাকচ করে দেয়া হয়।

ওই হামলাকে ‘মানবতার অপমান’ উল্লেখ করে এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর জেরে দেশটিতে ৫৯টি টমাহুক ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

ওপিসিডব্লিউ-এর গবেষকরা এখনো নমুনা সংগ্রহ ও পরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছেন। সেই সঙ্গে বেসামরিক লোকজনের সঙ্গে কথাও বলছেন তারা।

২০১৩ সালে সিরিয়াতে ভয়াবহ রাসায়নিক হামলার পর যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার না করার চুক্তি করেছিল।

Posted by Newsi24

বিদেশ এর সর্বশেষ খবর



রে