ঢাকা, সোমবার, ২৯ মে ২০১৭, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪

যে কারণে দলে ফেরানো হলো নাসিরকে

নাসির হোসেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের এক 'আক্ষেপের' নাম। তাকে দলে রাখা না-রাখা নিয়ে কম বিতর্ক হয়নি। একসময়ের 'দ্য ফিনিশার' খ্যাত এই ক্রিকেটার প্রায় একবছর ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে। তিনি সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে গত বছরের অক্টোবরে। এই মাঝে বেশ কয়েকবার মাঠের বাইরের ঘটনায় বিতর্ক হয়েছে নাসিরকে নিয়ে। কিন্তু সব সমস্যাকে দূরে রেখে ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত পারফর্ম করে যাচ্ছেন তিনি। কিন্তু শুধু তার এই পারফর্মেন্সই কি আবারও জাতীয় দলে সুযোগ করে দিল?

আজ বৃহস্পতিবার একইসঙ্গে দুটি টুর্নামেন্টের জন্য দল ঘোষণা করা হয়েছে। যেখানে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের ১৮ সদস্যর দলে আছেন নাসির। কিন্তু চ্যাম্পিয়নস ট্রফির ১৫ সদস্যর দলে তাকে রাখা হয়নি। পরিস্থিতি বিবেচনায় চ্যাম্পিয়নস ট্রফির দলে নাসিরের জায়গা পাওয়া একটু কঠিনই বটে।

দল ঘোষণার সংবাদ সম্মেলনে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, 'নাসিরের জায়গায় একই জায়গায় তিনজন খেলোয়াড় ছিল; সাব্বির, মোসাদ্দেক ও মাহমুদ উল্লাহ। এই তিনজনের পর ছিল নাসির। এখন যেহেতু সাব্বিরকে তিন নম্বরে তুলে আনা হয়েছে, তাই একটা জায়গা খালি হয়েছে। সে জন্যই নাসির। এই তিনজন থেকেই আমরা ছয় ও সাত নম্বরের জন্য নিব। এ জন্য ইংল্যান্ডে ক্যাম্পে ও আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে তাকে প্রস্তুত করা হবে। '

প্রধান নির্বাচকের শেষ কথাটায় আগ্রহ জন্মে। নাসিরকে প্রস্তুত করতে হবে ঠিক আছে, কিন্তু হঠাৎ করে এমন ভাবনা কেন? প্রধান নির্বাচক বললেন, 'নাসির ১ বছর ধরে দলের সাথে সফর করছে না। সেই হিসেবে ওকে আমরা একটি প্রক্রিয়ার মধ্যে এনেছি। ও ইমার্জিং কাপে ভালো খেলেছে, ঘরোয়া ক্রিকেট যথেষ্ট ভালো খেলেছে। কিন্তু ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অনেক ব্যবধান। সাসেক্সে প্রস্তুতি ক্যাম্প আছে। তা ছাড়া আয়ারল্যান্ড সফরে ওকে অভ্যস্ত করা দরকার। আর যেহেতু ওর অভিজ্ঞতা আছে, আশা করি, দ্রুত আগের ছন্দে ফিরবে। '

প্রধান নির্বাচকের কথায় স্পষ্ট হয়ে উঠল যে, সাসেক্সে প্রস্তুতি ক্যাম্প আর ত্রিদেশীয় সিরিজ হতে যাচ্ছে নাসিরের জন্য অগ্নিপরীক্ষা। এই দুই চ্যালেঞ্জ ভালোভাবে মোকাবিলা করতে পারলে, ভালো পারফর্মেন্স দেখাতে পারলে, চ্যাম্পিয়নস ট্রফির পরবর্তী সিরিজগুলোতে জাতীয় দলের দরজা তার জন্য খোলা থাকবে।

Posted by Newsi24

এ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

খেলা এর সর্বশেষ খবর



রে