ঢাকা, সোমবার, ২৯ মে ২০১৭, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪

২১ বছর ধরে স্বামীর কবরের পাশে বসবাস

২১ বছর ধরে স্বামীর কবরের পাশে বসবাস করছেন রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আমরপুর গ্রামের আমেনা বেগম (৭০)।

বর্তমানে মাজারটি খাতের সাধুর মাজার হিসেবে পরিচিত। কবরটি লাল কাপড় দিয়ে ঢাকা রয়েছে। এখানে প্রতি সপ্তাহে দুই দিন বাজার বসে। এছাড়া এখানে খাতের সাধুর ভক্তবৃন্দ প্রতি বছর ওরস পালন করেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার বাউসা ইউনিয়ননের আমরপুর গ্রামের খাতের সাধু ২১ বছর আগে মারা যান। তাকে তেঁথুলিয়া-বাউসা সড়কের পাশে আমরপুর গ্রামে নিজ জমিতে তাকে দাফন করা হয়।

খাতের সাধু আগে থেকে পীরের ভক্ত ছিলেন। ফলে তার কবরটি পাকা করে পাশে আধাপাকা একটি ঘর নির্মাণ করা হয়। ওই ঘরে দীর্ঘ ২১ বছর যাবত স্ত্রী আমেনা বেগম বসবাস করছেন।

খাতের সাধুর কোনো ছেলে নেই। তার তিন মেয়ে। মেয়েদের স্থানীয় এলাকায় বিয়ে দিয়েছেন। তারা তিন বেলা মাকে খাবার দিয়ে যায়।

এলাকাটি এখন খাতের সাধুর মোড় নামে পরিচিতি পেয়েছে। এখানে স্থানীয় লোকজন বাজারও বসিয়েছেন।

আমেনা বেগম বলেন, 'স্বামীর মৃত্যুর পর সাত বছর রাত-দিন কবরের পাশে থাকতাম। কিন্তু এলাকাবাসী ও স্বামীর ভক্তদের অনুরোধে পাশে মেয়ের বাড়িতে থাকছি।'

তিনি বলেন, 'সকালে ফজরের নামাজের সময় এখানে আসি, আর এশার নামাজ আদায় করে মেয়ের বাড়িতে যায়। এভাবেই চলছে ১৪ বছর।'

শেষ জীবনটুকু এভাবে পার করবেন বলে জানান আমেনা বেগম।

খাতের সাধুর মোড়ের ওষুধ ব্যবসায়ী মাহবুর রহমান (৩৫) বলেন, ছোট থেকেই আমেনা বেগমকে কবরের পাশে দেখছি।

বাউসা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান শফিকুর রহমান শফিক বলেন, মূল রাস্তার পাশে খাতের সাধুর কবর। এটি এখন মাজার হিসেবে পরিচালিত হচ্ছে। এখানে আমেনা বেগম বসবাস করছেন।

Posted by Newsi24

এ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

দেশ এর সর্বশেষ খবর



রে