ঢাকা, রবিবার, ২৮ মে ২০১৭, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪

কক্সবাজারে মুক্তিযোদ্ধা ভবনে হামলাকারী আটক

কক্সবাজার জেলা মুক্তিযোদ্ধা ভবনে হামলা চালিয়েছে ওমর কাজি ওরফে কালু মিয়া (২৫) নামের এক যুবক। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ‌ওই যুবক ভবনে ঢুকে তার কাছে থাকা শক্তিশালী বোমা মেরে ভবনটি উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয় সে। লোহার ভারি বল্লমধারি ওই যুবকের কবল থেকে এ সময় অল্পের জন্য রক্ষা পান জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার মোহাম্মদ শাহজাহান। এ ঘটনায় হামলাকারী ওই যুবককে আটক করা হয়েছে।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও পুলিশ সূত্র জানায়, হামলাকারী পরিকল্পিতভাবে কোনো ব্যক্তি বা পক্ষের নির্দেশে হামলার চেষ্টা করেছে। সে চট্টগ্রাম জেলার পটিয়া উপজেলার শোভনদণ্ডি ইউনিয়নের লাউয়ারখিল গ্রামের আবদুস সালাম ওরফে ফকির আহমদের ছেলে। সে কোনো জঙ্গি গ্রুপের সদস্য কিনা- তা পুলিশ তদন্ত করে দেখছে।

আজ শুক্রবার কক্সবাজার সদর মডেল থানায় আটক কালু মিয়া পুলিশ ও সাংবাদিকদের জানান, তিনি কক্সবাজার ইঞ্জিনচালিত মাছধরার নৌকা মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসাইনের মালিকানাধীন নৌকায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। নৌকার মাঝি ভোলার বাসিন্দা আবুল কালাম ও কক্সবাজার শহরের পেশকার পাড়ার আরেক নৌকার মালিক নুরুল আফসারের নির্দেশে কালু হামলার এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে জানান। কালু আরো জানান, নৌকার মাঝি আবুল কালাম এক মাস আগে মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারের ওপর হামলা চালানোর জন্য মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহানকে পরিচয় করিয়ে দেন তাকে (কালুকে)।

ঘটনার বিবরণ দিয়ে আজ শুক্রবার কক্সবাজার মুক্তিযোদ্ধা ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ভারপ্রাপ্ত কমান্ডার মোহাম্মদ শাহজাহান জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে অতর্কিতে হাতে লোহার বল্লম নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা ভবনে ঢুকে পড়ে কালু। তখন মুক্তিযোদ্বা শাহজাহানসহ আরো কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা বসে টেলিভিশন দেখছিলেন। কালু সরাসরি মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শাহজাহানের বুকে বল্লমটি লাগিয়ে তার কাছে বোমা রয়েছে বলে জানিয়ে সবাইকে সরে যেতে বলেন। কিন্তু মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহানের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এসে হামলাকারীকে ধরে ফেলে।

এ ঘটনায় আটক নৌকা শ্রমিক কালুর বিরুদ্ধে হত্যা প্রচেষ্টার মামলা রুজু করা হয়েছে। তাকে রিম্যান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানিয়েছেন সদর মডেল থানার ওসি মো. আসলাম হোসেন।

Posted by Newsi24

এ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

দেশ এর সর্বশেষ খবর



রে