ঢাকা, রবিবার, ২৮ মে ২০১৭, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪

`সৌদি সামরিক জোটে অংশগ্রহণ বিপজ্জনক’

সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটে বাংলাদেশের অংশগ্রহণকে একটি গুরুতর ভুল পদক্ষেপ হিসেবে দাবি করে এর বিরোধিতা করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি।

শুক্রবার পার্টির সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবু জাফর আহমেদের এক যৌথ বিবৃতিতে এ বিরোধিতার কথা জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটে শরিক দেশগুলোর সরকার প্রধানদের আসন্ন বৈঠকে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প যোগ দেবেন এবং ভাষণ দেবেন। এ জোট যে মার্কিন সাম্রাজ্যবাদের মদদপুষ্ট ও তাবেদার একটি জোট এ ঘটনার মধ্য দিয়ে তাই প্রমাণিত হয়েছে।

‘এর মধ্য দিয়ে মধ্যপ্রাচ্যের মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে যে দ্বন্দ্ব-বিভেদ-বিভাজন তাতে বাংলাদেশ নিজেকে জড়ালো এবং মার্কিন-সৌদি লবিতে নিজেকে এভাবে অন্তর্ভুক্ত করল। এ কাজ বিপজ্জনক ও জাতীয় স্বার্থ এবং নিরাপত্তার জন্য হুমকি।’

বিবৃতিতে সেলিম ও আবু জাফর বলেন, সৌদি আরব মুক্তিযুদ্ধের বিরোধিতার পাশাপাশি হানাদার বাহিনীকে অস্ত্র, অর্থ ও কূটনৈতিক মদদ দিয়েছিল। একাত্তরের গণহত্যার সহায়তাকারীর দায় থেকে সৌদি আরব মুক্ত নয়। কিন্তু আজ পর্যন্ত সে দেশটি তাদের ভুল স্বীকার এবং সে কারণে ক্ষমা প্রার্থনা করেনি।

‘বরঞ্চ সৌদি সরকার উল্টো জামায়াত-শিবিরসহ স্বাধীনতা বিরোধী ও সাম্প্রদায়িক শক্তির মদদদাতা হিসেবে সক্রিয় রয়েছে।’

সৌদি সামরিক জোটে প্রধানমন্ত্রীর যোগদান দেশের আন্তর্জাতিক নীতি সম্পর্কে সংবিধানে বর্ণিত নির্দেশনারও বরখেলাফ বলে দাবি করেছেন কমিউনিস্ট পার্টির নেতারা।

একই সঙ্গে তারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সাম্রাজ্যবাদবিরোধী, জোট নিরপেক্ষ, প্রগতিশীল পররাষ্ট্র নীতির ধারায় দেশ পরিচালনা করতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বিবৃতিতে।

Posted by Newsi24

বিদেশ এর সর্বশেষ খবর



রে